বৃষ্টির সাথে ভাব  না করে  উপায়  আছে ?একটু কথা  কাটাকাটি  হল কি হল না,অমনি সে জুড়বে কান্না , আর সে যদি একবার উল্টিয়ে ঠোঁট  ধরে মেঘমল্লার তাহলে আর দেখতে হবে না। বাড়ির উঠোন  ছাপিয়ে  তার কান্না পৌঁছোবে এক্কেবারে বাগানে। সেখানে  জল থই  থই ।  তারপর আম ,জাম,কাঁঠাল  গাছেদের কাছে নালিশ  শেষে সোজা রাজপথ ।  তারপর রাস্তা ধরে এপাড়া ওপাড়া ঘুরে শেষ মেষ নদীর সাথে দেখা করে সব রাগ  অভিমানের উপযুক্ত  বহিঃপ্রকাশ। বৃষ্টি আর  নদী ।  দুই মহাঅভিমানি মেয়ে। এদের যারা কাছ থেকে দেখেছে, হাজার ভয় সত্ত্বে ত্ত এদের ভালোবেসেছে। এক দুর্নিবার আকর্ষণে ছুটে গেছে ওদের কাছে। জলে ভিজে একাকার ।  জলের স্পর্শে কেঁপেছে। তবু জলকেই ভালোবেসেছে আর গেয়েছে প্রাণ ভরে বরষার গান। জলমগ্ন শহরে নৌকার  দাঁড় হাতে সেজেছে মাঝি। জলের ওপর আলোর ছবিআঁকা দৃশ্য তখন হয়েছে তার স্বপনের চাবিকাঠি যা দিয়ে সে দিয়েছে পাড়ি তার ভালোলাগার জগতে।বৃষ্টির সাথে ভাব না করে উপায় আছে?

Comments

Popular posts from this blog

How many times, love,

Still remember the day